in , , , , ,

রাহুলকে তোপ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলার

নয়াদিল্লি: কেন্দ্রকে তোপ দেগে রাহুল গান্ধী  বলেছিলেন , ”দেশ চালাচ্ছেন চারজন, হাম দো, হামারে দো।” শনিবার রাহুলকে তারই পালটা দিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এদিন সংসদে অর্থমন্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, ”হাম দো হামারে দো মানে হল, আমরা দু’জন মিলে একটা দল চালাই। সেই সঙ্গে আরও দু’জনের দায়িত্বও পালন করতে হয় আমাদের, অর্থাৎ মেয়ে ও জামাই।” তাঁর কটাক্ষ থেকে পরিষ্কার, তিনি সোনিয়া-রাহুলের নেতৃত্বে কংগ্রেসের কথা বলেছেন। সেই সঙ্গে তুলে এনেছেন সোনিয়া-কন্যা প্রিয়াঙ্কা ও জামাই রবার্ট বঢরার নামও। এদিন আগাগোড়াই আক্রমণাত্মক মেজাজে ছিলেন অর্থমন্ত্রী। বাজেট নিয়ে লোকসভায় আলোচনা চলাকালীনই তিনি বিরোধীদের কাঠগড়ায় তুলে বলেন, ”যাঁরা কেবল ক্রোনিদের নিয়ে আমাদের কটাক্ষ করছেন, তাঁদের বলতে চাই ‘পিএম স্বনিধি যোজনা’ কোনও ক্রোনির জন্য নয়।” সেই সঙ্গে কংগ্রেসের দিকে তোপ দেগে নির্মলা রবার্ট বঢরার জমি কেলেঙ্কারির প্রসঙ্গও তোলেন।এদিন নির্মলা আরও বলেন, ”আমরা ওসব করি না। ৫০ লক্ষ হকারকে এক বছরের জন্য ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছে। তাঁরা কেউ কিন্তু ‘ক্রোনি’ নন।” প্রসঙ্গত, রাহুলের ‘ক্রোনিজীবী’ কটাক্ষকেও এভাবে পালটা দিয়েছেন নির্মলা। পাশাপাশি জানিয়েছেন, ”ক্রোনিরা কোথায়? সম্ভবত তাঁরা সেই দলের ছায়ায় লুকিয়ে পড়েছেন, যে দলটিকে জনতা প্রত্যাখ্যান করেছে। আর আমাদের ক্রোনি কারা? দেশের সাধারণ মানুষই আমাদের ক্রোনি।”

একই সঙ্গে এ দিন মমতা বন্দোপাধ্যায়ের রাজ্য সরকার কে আক্রমণ করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মাননিধি নিয়ে আজ ফের একবার রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করলেন নির্মলা সীতারমন। নির্মলা সীতারমন রাজ্যের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে বলেন, ‘প্রায় ৬৯ লক্ষ কৃষক কিষাণ সম্মাননিধি প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেই লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি। কারণ, বাংলার কৃষকদের তালিকা আমাদের কাছে এসে পৌঁছায়নি।’

What do you think?

Written by News Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

রোহিতের অনবদ্য ইনিংসে লড়াইয়ে ভারত

উপযুক্ত সময়ে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা পাবে জম্মু-কাশ্মীর দাবি অমিত শাহ’র